মফস্বল পর্যায়ে সমকালের মাসিক সেরা রিপোর্টার মোস্তাফিজুর রহমান

Mustafiz-Samakal.jpg

এম এ মান্নান
দেশের বহুল প্রচারিত ও প্রশংসিত পত্রিকা দৈনিক সমকালের নান্দাইল, ঈশ্বরগঞ্জ ও গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান অত্যন্ত বস্তুনিষ্ঠ ও দু:সাহসিক রিপোর্ট করায় পত্রিকার সনামধন্য সম্পাদক গোলাম সারওয়ার তাকে পুরস্কৃত করেছেন। চলতি ২০১৮ সনের এপ্রিল মাসে ‘সাবজানের ভিটাকে ওরা বানাল ফসলি জমি’ শিরোনামে নিউজটি অত্যন্ত চমৎকার ও সময়ের দাবি পূরণ করায় বিজ্ঞ বিচারকমন্ডলী তাকে এপ্রিলের সেরা রিপোর্টার নির্বাচিত করেন। মফস্বলে তিনিই সরাসরি সম্পাদকের হাত থেকে পুরস্কার পাওয়া দ্বিতীয় ব্যক্তি। এ সম্মাননা লাভ করায় তাকে বিভিন্ন মহল থেকে প্রশংসাসহ অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানানো হচ্ছে। সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তাফিজুর রহমান এতে এতই খুশি হয়েছেন যে, তা যেন বুঝানো কঠিন। এ বিষয়ে ফেইসবুকে তিনি এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি লিখেন, এই প্রথম প্রিয় সম্পাদক গোলাম সারওয়ার স্যারের সাথে দেখা। কল্পনার জগতে যে মানুষটিকে লালন করতাম আজ সেই প্রিয় মানুষটির সাথে দেখা করার সুযোগ হয়েছে। এটি রুপকথার গল্পের মতোই লাগছে আমার কাছে। এপ্রিল ২০১৮’র সেরা রিপোর্টার হিসেবে সনদ ও সম্মানি নিজ হাতে দিয়েছেন প্রিয় সম্পাদক। কোন উপজেলা প্রতিনিধিকে এটি দ্বিতীয়।
পেছনের টুকরো গল্প:
২০১২ সাল থেকে সমকালের সাথে যুক্ত রয়েছি। কিন্তু প্রিয় মানুষটির সাথে কোনো দিন দেখা হয়নি। বড় মাপের মানুষের দেখা পাওয়াটাও ভাগ্যের ব্যাপার। আজ কানায় কানায় পূর্ণ আমি।
ঘটনাচক্রঃ গেল অক্টোবরে মহিউদ্দিন রানার সাথে পরিচয়। সে আমাদের ঈশ্বরগঞ্জ সুহৃদ সমাবেশের সাংগঠনিক সম্পাদক। গত রাতে যখন ঢাকায় আসার কথা হচ্ছিল হঠাৎ সে পুরুনো কিছু কথা মনে করিয়ে দেয়।
কথা গুলো ছিলো এরকম “ভাইজান আপনার কাছে সেদিন জানতে চেয়েছিলাম আপনার সম্পাদক স্যারের সাথে কোনো দিন দেখা হয়েছিল কি না। আপনি বলছিলেন দেখা হয়নি। তবে আপনার কাজ হয়তো একদিন আপনাকে উনার কাছে পৌঁছে দেবে সেটা বলেছিলেন। আজ সে কথা সত্যি হয়েছে।”
স্বীকৃতির প্রাপ্তিঃ
আজ যে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে সমকাল থেকে তা প্রিয় রাজীব নূর ভাই না হলে হয়তো সম্ভব হতো না। উনাকে হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা ছাড়া দেবার মতো কিছু নেই।
সমকাল পরিবারেরর প্রতিটি সদস্যের অশেষ ভালোবাসা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। আগামী দিন গুলোতেও যেনো এভাবেই কাজ করে যেতে পারি সেই প্রত্যাশা থাকল সমকাল পরিবারের প্রতি।
সংবাদপত্রের জগতে আজকের দিনে আসার পেছনে যাদের ভূমিকা রয়েছে কৃতজ্ঞতা সেই মানুষ গুলোর প্রতি। বিশেষ করে মো.সেলিম, আলম ফরাজী, কবি ও অধ্যাপক সোহরাব পাশা, আবদুল আউয়াল, ফেরদৌস কোরাইশী টিটুসহ ভালোবাসার আরো কিছু মানুষ।
মোস্তাফিজুর ভাইয়ের মত সফলতা ছিনিয়ে আনার অভিপ্রায় ও অনুপ্রেরণা ছড়িয়ে পড়ুক মফস্বলের অন্যান্য সাংবাদিকের মাঝেও।

Share this post

PinIt
mamannan537

mamannan537

I'm M A Mannan. I'm a founder principal of Excellent School & Madrasah It's new name is Darul Ihsan Qasimia (Excellent) Madrasah. It's situated at Phulpur in Mymensingh. I'm also a journalist. I write in The Daily Tathyadhara, The Dainik Bangladesher Khabor and Bangladesh Pratidin.

scroll to top