একটি ব্রিজের জন্য নাগরিক নানা সুবিধা বঞ্চিত মালিঝিপাড়ের মানুষ

Nishuniakanda.jpg

এম এ মান্নান
মালিঝি নদীতে নিশুনিয়াকান্দায় একটি ব্রিজের অভাবে উন্নয়নবঞ্চিত ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার সিংহেশ্বর ইউনিয়নের চাতুলিয়া কান্দা, সেনেরচর, মালিঝিকান্দা, নিশুনিয়াকান্দা, কুঠুরাকান্দা, বানিয়াপাড়া ও ফতেপুরসহ প্রায় ১০ গ্রামের মানুষ। মালামাল বহন করতে নৌকা ও যাতায়াতের জন্য নড়বড়ে একটি বাঁশের সাঁকোই তাদের একমাত্র ভরসা। জানা যায়, গত ৫/৬ বছরে মালিঝি নদী পারাপারের সময় বাঁশের সাঁকো থেকে পড়ে প্রায় ৫০ জন আহত ও সাঁতরিয়ে নদী পার হওয়ার সময় নিশুনিয়াকান্দা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী আফরোজা ও কৃষক আব্দুল কাদিরসহ তিনজন নিহত হন। বার বার জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের নিকট দাবী জানিয়ে আসলেও অদ্যাবধি মালিঝি নদীতে হয়নি কোন ব্রিজ। মালিঝি নদীটি ৫নং ফুলপুর ইউনিয়নের নাকাগাঁও ও বানিয়াপাড়া গ্রামের পশ্চিম পাশ দিয়ে কংশ নদীতে গিয়ে মিলিত হয়েছে। কংশ এবং মালিঝি দুই নদী মিলে ময়মনসিংহের ফুলপুর ও হালুয়াঘাট উপজেলা শহর থেকে বিচ্ছিন্ন ও উন্নয়নবঞ্চিত করে রেখেছে শত শত মানুষকে। বঞ্চিত ওইসব মানুষকে উন্নয়নমুখী করতে মালিঝি নদীতে একটি ব্রিজের কোন বিকল্প নেই। এসব গ্রামে ধান ও সরিষার পাশাপাশি লাউ, কুমড়া, তরমুজ, সীম, খিরা, মরিচ, পেঁয়াজসহ হেন কোন ফসল নেই যা ফলে না। কৃষিজ ওইসব পণ্যের ন্যায্যমূল্য তারা কখনই পান না। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কৃষক, শ্রমিক, শিশু, বৃদ্ধ, রোগী, ছাত্রছাত্রী ও গর্ভবতীসহ শত শত মানুষকে চলাচল করতে হয় নড়বড়ে ওই সাঁকো দিয়েই। কথা হয় কৃষক আকবর আলী, হারুনুর রশিদ, চান মিয়া, সুরুজ আলী ও জয়নাল আবেদীনসহ এলাকার বেশ কয়েকজনের সাথে। তারা বলেন, দেশে উন্নয়নের জোয়ার বইলেও অধিকারবঞ্চিত ও অবহেলিত থেকে যাচ্ছি আমরা মালিঝিপাড়ের মানুষ। উপজেলা শহর থেকে মালিঝি নদী মাত্র ৪/৫ কিলোমিটারের পথ হলেও একটি ব্রিজ আমাদের পিছিয়ে রেখেছে। এটুকু রাস্তা যেতে আমাদের কাছে মনে হয় শত কিলোমিটারের পথ। স্বাধীনতার প্রায় ৪৬ বছর পেরিয়ে গেলেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি ওইসব এলাকায়। আকবর আলী বলেন, শিক্ষা, চিকিৎসা ও অধিকারবঞ্চিত অসহায় মানুষ আমরা। আমরা উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য থেকে এমনকি ভাল পরিবারের সাথে আত্মীয় করা থেকে বঞ্চিত হওয়াসহ একটি ব্রিজের জন্য নানাভাবে বঞ্চিত। এসব কষ্ট তুলে ধরে ওই এলাকার একজন সচেতন নাগরিক মোহাম্মদ হজরত আলী বলেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের নাগরিকদের নানারকম সুবিধা দিলেও সুবিধাবঞ্চিত আমাদের মালিঝিপাড়ের মানুষ। সরকারকে বিভিন্ন স্থানে প্রায়ই নানা উন্নয়নমূলক কাজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন ও ফলক উন্মোচন করতে দেখা যায়। দেখে আনন্দ লাগে; বুকটা ভরে যায় কিন্তু হাজার বছরের অবহেলিত মালিঝিপাড়ের মানুষের যাতায়াত অব্যবস্থা ও দুঃখ দূর্দশা দেখলে সকল আনন্দ ম্লান হয়ে যায়। এ বিষয়ে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুর রহমানের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এলাকাটি পরিদর্শন করেছি। আসলেই খুবই করুণ অবস্থা তাদের। মাননীয় এমপি শরীফ আহমেদের সাথে বিষয়টি শেয়ার করে ওখানে একটি ব্রিজের জন্য আমি আপ্রাণ চেষ্টা করব। এলাকাবাসির দীর্ঘদিনের স্বপ্ন মালিঝি নদীতে ছোট্ট একটি ব্রিজ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট জানতে বাসনা মালিঝিপাড়ের মানুষের দু:খ লাঘবে স্বপ্নের ওই ব্রিজ আদৌ হবে কি?

Share this post

PinIt
mamannan537

mamannan537

I'm M A Mannan. I'm a founder principal of Excellent School & Madrasah It's new name is Darul Ihsan Qasimia (Excellent) Madrasah. It's situated at Phulpur in Mymensingh. I'm also a journalist. I write in The Daily Tathyadhara, The Dainik Bangladesher Khabor and Bangladesh Pratidin.

scroll to top