বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রী)’র পরিচালক পদে ড. তমাল লতার যোগদান

D-Tamal-Lata.jpg

ময়মনসিংহের বৃহত্তর ফুলপুরের কৃতি সন্তান কুন্ডল বালিয়া গ্রামে ফোটা ফুল বিজ্ঞানী ড. তমাল লতা আদিত্য এখন সারা বাংলাদেশে পরিচিত ও সম্মানীয় ব্যক্তিত্ব। তিনি বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রী)’র পরিচালক পদে ২ অক্টোবর সোমবার যোগদান করেন।সম্প্রতি তিনি ধান গবেষণায় বিশেষ অবদান ও কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাকে পুরস্কৃত করেছেন। তার সম্বন্ধে তার বড়ভাই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. গণপতি আদিত্য বলেন,
‘সে আমার ছোটবোন
তমাল তরু রঙ-
তমাল লতা,
ধান নিয়ে যার ধ্যান,
ধান আর ধান,
শুধু ধানের কথা।’
**
তিনি আরও বলেন, আমার ছোটবোন ড. তমাল লতা আদিত্য বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রী)তে পরিচালক (গবেষণা) পদে যোগদান করেছেন। তাকে অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, সদ্য যোগদানকারী পরিচালক (প্রশাসন) ড. আনসার আলী সিদ্দিকী ও সদ্য যোগদানকৃত মহাপরিচালক ড. শাহজাহান কবীরকেও অভিনন্দন জানাচ্ছি। তিনি আরও বলেন,
আমার কুন্ডলবালিয়া গ্রামের মানুষ আজ এই তিনজনকে নিয়েই আনন্দিত। প্রথমজন গাঁয়ের মেয়ে, শেষের দু’জন দু’ বছর আগে সদলবলে এসেছিলেন এই গাঁয়ে ব্রী৫৮ ধানের মূল্যায়ণ করতে, তমাল লতার গর্বিত এই ভাইয়ের ক্ষেতে।
সেই অনুষ্ঠানের মধ্যমণি ছিলেন, বাংলাদেশের “ধান সাহিত্যের” সর্বজনপ্রিয় লেখক তৎকালীন মহাপরিচালক ড. জীবন কৃষ্ণ বিশ্বাস।
Marc, you say that an agent will see a self-published book with great sales and reason that cheapest essay there probably isn’t all that much left to profit from

Share this post

PinIt
mamannan537

mamannan537

I'm M A Mannan. I'm a founder principal of Excellent School & Madrasah It's new name is Darul Ihsan Qasimia (Excellent) Madrasah. It's situated at Phulpur in Mymensingh. I'm also a journalist. I write in The Daily Tathyadhara, The Dainik Bangladesher Khabor and Bangladesh Pratidin.

scroll to top