পিতার সাথে দ্বন্দ্বের জেরে কোপালো প্রতিবন্ধী পুত্রকে, বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

Phulpur-0844.jpg

এম এ মান্নান :
ময়মনসিংহের তারাকান্দায় পিতার সাথে দ্বন্দ্বের জেরে কুপিয়ে জখম করলো মনিরুজ্জামান (৩২) নামে এক অসহায় বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীকে। উপজেলার বালিখা ইউনিয়নের পূর্ব পাগুলি গ্রামের শিমুলিয়াপাড়ায় গত দশ সেপ্টেম্বর এ ঘটনা ঘটে। অসহায় ওই প্রতিবন্ধীর উপর আক্রমণের প্রতিবাদে শনিবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে এলাকাবাসি এক বিশাল মানববন্ধন ও প্রতিবাদ মিছিল করেছে। উপজেলার বালিখা ইউনিয়নের দাদরা বাজার সংলগ্ন কদমতলী বাজারে ওই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে বালিখা ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম দুদু, ইউপি মেম্বার আবুল হাশেম, আল মামুন, হারুনুর রশিদ, মোজাম্মেল হকসহ শতাধিক নারী পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।
জানা যায়, আহমদ আলী ও আব্দুল হেকিমের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছিল। পরে এর সাথে আব্দুর রশিদকেও জড়ানো হয়। এরই সূত্র ধরে গত ১০ সেপ্টেম্বর পূর্ব পাগুলি গ্রামের শিমুলিয়াপাড়ায় নিজের ক্ষেতের আলে ঘাস কাটতে গেলে বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী মনিরুজ্জামানের পিতা আব্দুর রশিদের সাথে দ্বন্দ্বের জেরে তার উপর হামলা ও মারধর করে প্রতিপক্ষের লোকজন। এতে সে মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় প্রতিবন্ধী মনিরুজ্জামানের মা ফজিলা খাতুন বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। তিনি বলেন, প্রতিবেশি সুলতান, আজহারুল, নূরুল, সেকান্দর, রমজান ও তসলিমরা এর আগেও অন্যায়ভাবে আমাদের উপর আক্রমণ করেছে। খুনের ঘটনাসহ বাড়িঘর জ্বালিয়ে দেওয়ার ঘটনা পর্যন্ত এরা ঘটিয়েছে। এদের উপদ্রবে অন্যত্র গিয়ে বাড়ি করেছি। এরপরও আমাদেরকে অত্যাচার করে যাচ্ছে তারা। এবার আমার বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী ছেলেটাও এদের হাত থেকে রক্ষা পায়নি। যেভাবে আঘাত করেছিল মেরেই ফেলতো। স্বয়ং আল্লাহ রক্ষা করেছেন। আমি এর বিচার চাই। স্থানীয় হাশেম মেম্বার বলেন, এরা এলাকার ত্রাস। এদের ভয়ে আমরা রাতেও ঘুমাতে পারি না। মোজাম্মেল হক বলেন, ওরা প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে ঘুরে। এদের ভয়ে আমরা একজন আরেকজনের সাথে প্রকাশ্যে কথা পর্যন্ত বলতে পারি না। সরেজমিন গেলে সুলতান নামে এক মুরুব্বি বলেন, এলাকায় এরা বিরাট অত্যাচার আরম্ভ করছে। কদমতলীর দিকে ইশারা করে তিনি বলেন, লাডি লইয়া এরা এইনো আয়া পড়ে। মানববন্ধনে বক্তব্যে ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম দুদু বলেন, একটা স্বাধীন দেশে দিনের দুপুরে এ রকম অত্যাচার চলতে পারে না। আমরা জানতাম যে, বোবার কোন শত্রু নেই। এখন দেখছি, এরা বোবার সাথেও শত্রুতা করছে। আমরা এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

Top