হালুয়াঘাটে নলকূপের অভাবে ৮ হাজার হেক্টর বোরো জমি অনাবাদি

Hghat-land.jpg

মো. আব্দুল মান্নান :
ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে গভীর নলকূপের অভাবে ৭ থেকে প্রায় ৮ হাজার হেক্টর বোরো জমি অনাবাদি রয়েছে। সেচের অভাবে এসব জমিতে রোপা আমনের পর বোরো আবাদ করা যায় না। এতে শত শত কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন । সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা যায়, সেচের সুব্যবস্থা না থাকায় হালুয়াঘাট সদর ইউনিয়ন, কৈচাপুর, ভূবনকুড়া, জুগলী ও গাজিরভিটা ইউনিয়নসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের ৭ থেকে প্রায় ৮ হাজার হেক্টর বোরো জমি অনাবাদি পড়ে রয়েছে। পশ্চিম গোবরাকুড়া গ্রামের এলাম উদ্দিন হাজীর ছেলে কৃষক লিটন জানান, আমনে ফলন তেমন ভাল হয় না। বোরোতেই কয়ডা ধান পাওয়া যায়। অথচ সেচের অভাবে আমরা বোরো করতে পারি না। একই গ্রামের কৃষক মাওলানা আশরাফ আলী বলেন, এদিকে পানির লেয়ার অনেক নিচে। সেলু মেশিনে পানি ওঠে না। তাই আমরা বোরো করতে পারি না। পূর্ব গোবরাকুড়া গ্রামের কৃষক উসমান গণি বলেন, সেচের অভাবে বোরো করতে না পেরে আমরা খুব বিপদে আছি। সরকার যদি আমাদের দিকে একটু তাকাতো একটা গভীর নলকূপ বসাতো তবে এই এলাকার কয়েকশ একর জমিতে বোরো ফসল করা যেতো। একই দৃশ্য কৈচাপুর, গাজিরভিটা, জুগলী ও অন্যান্য ইউনিয়নেও।
উপজেলা কৃষি অফিসার সুলতান আহমেদ বলেন, এসব জমিতে খাল খনন করে অথবা ডীপ টিউবওয়েল বসিয়ে যদি সেচের ব্যবস্থা করা যেতো তবে বোরো মৌসূমে এত জমি অনাবাদি থাকতো না। আমরা এ বিষয়ে মনস্ত্রণালয়ে আবেদন পাঠিয়েছি।

Top