১৯ জানুয়ারি ফুলপুরে দেড় লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস খাওয়ানো হবে

Phulpur-Pic-Campaign.jpg

এম এ মান্নান :
১৯ জানুয়ারি ময়মনসিংহের ফুলপুর তারাকান্দার প্রায় দেড় লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এ বিষয়ে জনসচেতনতামূলক জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন (দ্বিতীয় রাউন্ড) উপজেলা এডভোকেসী ও পরিকল্পনা সভা ফুলপুর উপজেলা অফিসার্স ক্লাব মিলনায়তনে আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন, হাসপাতালের প্রধান কর্মকর্তা ডা. পরিমল কুমার পাল। আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. প্রাণেশ চন্দ্র প-িতের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেবুন নাহার শাম্মী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ফুলপুর থানার অফিসার ইন-চার্জ মুহাম্মদ বদরুল আলম খান। বক্তব্যে বলা হয়, ৬-১১ মাস বয়সী শিশুদের নীল রঙের ও ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশুদের লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়াতে হবে। এবার ফুলপুর ও তারাকান্দা উপজেলায় নির্ধারিত ৪৮০টি কেন্দ্রের বাইরেও আমুয়াকান্দা স্কুল, সিংহেশ্বর রাজঘাটে, আশ্রয় কেন্দ্রসমূহে, গুচ্ছগ্রামে ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। প্রতি কেন্দ্রে একজন করে স্বাস্থ্যকর্মী ও দুইজন স্বেচ্ছাসেবী এ ক্যাপসুল খাওয়াবেন। বক্তব্যে ফুলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. প্রাণেশ চন্দ্র প-িত বলেন, ৬ মাসের কম ও ৫ বছরের বেশি বয়সের শিশুকে এ ক্যাপসুল খাওয়ানো যাবে না। এমনকি কান্নারত অবস্থায়ও শিশুকে এ ক্যাপসুল খাওয়ানো যাবে না। হাসপাতালের প্রধান কর্মকর্তা ডা. পরিমল কুমার পাল বলেন, ভিটামিন এ ক্যাপসুলের অভাবে শিশুদের রাতকানা রোগ হয়। তিনি আরো বলেন, জন্মের ৬ মাস পর্যন্ত শিশুকে মায়ের বুকের দুধ ব্যতিত অন্য খাবার খাওয়াতে যাবে না। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেবুন নাহার শাম্মী যাদের ঘরে ছোট শিশু বাচ্চা আছে তাদের সবাইকে এই ক্যাপসুল খাওয়ানোর জন্য আহ্বান জানান। তিনি বলেন, খেয়াল রাখতে হবে যাতে কোন বাচ্চা বাদ না পড়ে। এ সময় সাংবাদিকবৃন্দসহ উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন, একাডেমিক সুপার ভাইজার পরিতোষ সূত্রধর, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফিল্ড সুপার ভাইজার জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Top